Homeজাতীয়রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে যুক্তরাষ্ট্র-ইইউসহ ১৫ দূতাবাসের আহবান

রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে যুক্তরাষ্ট্র-ইইউসহ ১৫ দূতাবাসের আহবান

বিশ্ব শরণার্থী দিবসে নতুন উদ্যমে রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে সবার প্রতি আহবান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে ১৫টি বিদেশি দূতাবাস ও হাইকমিশন। বৃহস্পতিবার (২০ জুন) দেওয়া এ যৌথ বিবৃতিতে তারা বিশ্বের ১২ কোটি শরণার্থীর প্রতি সংহতি প্রকাশ করেছে।

বিবৃতিতে তারা বলেছে, আজ বিশ্ব শরণার্থী দিবসে আমরা সংঘাত, সহিংসতা এবং নিপীড়নের কারণে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত হওয়া ১২ কোটি মানুষ অর্থাৎ বিশ্বের প্রতি ৬৯ জনের মধ্যে ১ জনের সাথে সংহতি প্রকাশ করছি। এদের মধ্যে রয়েছে ১০ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা, যারা মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

‘আমরা বাংলাদেশ সরকারকে রোহিঙ্গাদের প্রয়োজনের সময় সমর্থন দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাই। আমরা সকল প্রতিকূলতায় রোহিঙ্গা জনগণের অবিশ্বাস্য স্থিতিশীলতা এবং আত্মবিশ্বাস সম্মানের সঙ্গে স্মরণ করছি।’

 

যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, আমরা সবাই রোহিঙ্গা শরণার্থী এবং বাংলাদেশের স্থানীয় সম্প্রদায়ের জন্য প্রয়োজনীয় সেবা প্রদানে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। উদীয়মান নতুন সঙ্কট এবং ক্রমবর্ধমান বৈশ্বিক মানবিক চাহিদার মাঝে আমরা এই দীর্ঘস্থায়ী সঙ্কটের জন্য বিশ্বের দৃষ্টি আকর্ষণের অবিরত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

‘রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য তাদের স্বেচ্ছায় নিরাপদ, মর্যাদাপূর্ণ এবং দীর্ঘমেয়াদে টেকসই প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে সবাই আশাবাদী। তবে, মিয়ানমারে ক্রমবর্ধমান সংঘাত এবং মানবিক অবস্থার অবনতির অর্থ হলো যে, এটি নিকট ভবিষ্যতে অসম্ভব। আমরা রাখাইন রাজ্যের পরিস্থিতি এবং সীমান্তে এর প্রভাব নিয়ে গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। আজ আমরা সকল নাগরিকের সুরক্ষার গুরুত্ব পুনর্ব্যক্ত করছি।’

আরও বলা হয়, ‘২০২৩ সালের ডিসেম্বরে গ্লোবাল রিফিউজি ফোরামে আমরা জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুতির জটিলতা মোকাবিলার জন্য বৈশ্বিক দায়িত্ব এবং অংশীদারত্ব বাড়ানোর জন্য একটি যৌথ প্রতিশ্রুতি দিয়েছি। বাংলাদেশে অবস্থানকালে রোহিঙ্গাদের জন্য উন্নত এবং মর্যাদাপূর্ণ জীবন নিশ্চিত করতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমরা বাংলাদেশ সরকারের সাথে অংশীদারত্বের মাধ্যমে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য টেকসই সমাধানের দিকে আঞ্চলিক সমন্বয় এবং যৌথ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব।’

সম্পর্কিত

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন