Homeআন্তর্জাতিকপ্যারিসের ইতিহাসে প্রথমবার মশা মারতে ব্যবহার করা হচ্ছে ধোঁয়া

প্যারিসের ইতিহাসে প্রথমবার মশা মারতে ব্যবহার করা হচ্ছে ধোঁয়া

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে অতীতে কখনোই মশা মারতে ধোঁয়ার আশ্রয় নিতে হয়নি। তবে সম্প্রতি প্যারিসের সেই সোনালি দিন অতীতে পরিণত হয়েছে। শহরটিতে ক্রমেই বাড়তে থাকা জীবাণুবাহী টাইগার মশা মারতে এবার শহরটির কর্তৃপক্ষ আশ্রয় নিয়েছে রাসায়নিক ধোঁয়ার। রাজধানীতে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার পর শহরটির কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো ধোঁয়া স্প্রে করা হয় শহরের বিভিন্ন স্থানে। এ সময় শহরের অনেক সড়কেই যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। শহরবাসীকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া নির্দিষ্ট সময়ে ঘরের বাইরে বের না হতে অনুরোধ করা হয়।

ক্রান্তীয় অঞ্চলের দেশগুলো, বিশেষ করে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে এমন দৃশ্য অতি সাধারণ হলেও ইউরোপের ইতিহাসে এমন ঘটনা বিরলই। তবে জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বদলাচ্ছে সবই। ইউরোপের অধিকাংশ শহরেই এখন ডেঙ্গু, চিকুনগুনিয়া, জিকা ভাইরাসের মতো বিভিন্ন রোগবালাইয়ের সংখ্যাও বাড়ছে।

প্যারিসের জনস্বাস্থ্য নীতিবিষয়ক ডেপুটি মেয়র অ্যানে সৌরিস ফরাসি টেলিভিশন চ্যানেল বিএফএম টেলিভিশনকে ধোঁয়া স্প্রে করার বিষয়টি নিয়ে বলেন, ‘প্যারিসে এই প্রথমবার হলেও ফ্রান্সের ইতিহাসে এটি প্রথমবার নয়।’ তিনি আরও বলেন, ‘বিগত কয়েক বছর ধরেই ফ্রান্সের দক্ষিণাঞ্চলে টাইগার মশার উৎপাত বেড়েছে।’

প্যারিসের স্বাস্থ্য সংস্থা এআরএস ইলে-দ্য-ফ্রান্স বলেছে, মূলত রাজধানীর ১৩তম জেলার এক ব্যক্তির বাড়ির চারপাশকে কেন্দ্র করেই ধোঁয়া স্প্রে করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তিনি দেশের বাইরে বেড়াতে গিয়ে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে এসেছিলেন। প্রতিষ্ঠানটি এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘একজন ডেঙ্গু শনাক্ত হওয়ার পর সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে এই কার্যক্রম চালানো হচ্ছে।’

সম্পর্কিত

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন